ঢাকা ০২:১৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ৪ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ইসরায়েলের মন্ত্রিসভায় পদত্যাগের হুমকি

গাজায় অভিযান নিয়ে বিভক্তি বাড়ছে | ইসরায়েলের মন্ত্রিসভায় |পদত্যাগের হুমকি নিরাপত্তা উপদেষ্টার |

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০২:০২:৩৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৯ মে ২০২৪ ৮৬ বার পড়া হয়েছে

আসসালামুয়ালাইকুম। নিউজমিডিয়াবিডি.কম সবাইকে স্বাগতম। গাজায় অভিযান নিয়ে বিভক্তি বাড়ছে ইসরায়েলের মন্ত্রিসভায় আট জনের মধ্যে সুনির্দিষ্ট পরিকল্পনা না এলে পদত্যাগের হুমকি নিরাপত্তা উপদেষ্টার।
শুক্রের পূর্বাঞ্চলে একের পর এক এলাকা দখলে নিচ্ছে ভাষা অস্ত্র সেনা সঙ্কটে কোণঠাসা হলেও অবস্থান ধরে রাখতে মরিয়া কি? জয়া।
টিভি বিতর্ক ঘিরে কথার লড়াই মার্কিন নির্বাচনের দুই প্রার্থী প্রেসিডেন্ট বাইডেনের বাদক পরীক্ষা করার দাবি ডোনাল্ড ট্রাম্পের।

নতুন ছিলেন নুসরাত বৃষ্টি সাথে আছে। ইসরায়েলি নৃশংসতার একটি রক্তক্ষয়ী রাত দেখল গাজাবাসী উত্তর ও দক্ষিণাঞ্চলের একাধিক শরণার্থী শিবিরে ভয়াবহ তাণ্ডব চালানো হয়। টার্গেট ছিল জনবহুল এলাকাগুলো শনিবারের হামলায় কমপক্ষে 64 জনের মৃত্যু হয়েছে। বিভিন্ন ভবনের ধ্বংসস্তূপের নিচে চাপা পড়ে আছে অনেকেই। তাই প্রাণহানির ধারণার তুলনায় বেশি এমন শঙ্কা ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষের জাবালিয়া শরণার্থী শিবিরে রাতভর বোমাবর্ষণ করেছে। ইজরায়েলি সেনা এবং বিমান হামলায় কমপক্ষে 28 জন নিহত হয়েছে, যার বেশিরভাগই নারী ও শিশু।

উত্তর গাজার আরও ভেতরে প্রবেশ করেছে পদাতিক সেনাদল আগ্রাসন চালিয়েছে। উপত্যকার অন্যান্য অংশ থেকে রাতে বিমান হামলায় 17 জনের প্রাণ গেছে রাফাত খান৷ উনিও টানা বোমা বর্ষণ করছে ইহুদি সেনারা।
ইসরায়েলের তীব্র হামলার জের অফার ছাড়তে বাধ্য হয়েছেন নয় লাখ ফিলিস্তিনি। শনিবার এই তথ্য জানিয়েছে, জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক এজেন্সির ইউএনআরডব্লিউএ। তবে তাঁরা কোথায় যাবে কোন নিশ্চয়তা নেই। এরই মধ্যে আলবেলাতে তৈরি হয়েছে স্থান সঙ্কট। অনেকেই সাত অক্টোবরের পর থেকে কয়েক দফায় বাস্তুচ্যূত হয়েছেন। নতুনভাবে আবারো তাদের খুঁজতে হচ্ছে নিরাপদ আশ্রয়৷ শুধু রফা নয়, হামলা জোরদার এর কারণে উত্তর গাজা ও খালি করতে শুরু করেছে ফিলিস্তিনের পর্যন্ত।

1,00,000 মানুষ অঞ্চল থেকে সরে গেছেন। তবে কোথায় আশ্রয় নেবেন তা কেউ জানেন না। নিরাপদ বলে ঘোষণার পর ওখানে নিজেদের বালা সহ পুরো গাজায় হামলা চালাচ্ছে ইসরায়েলি সেনারা।

গাজায় যুদ্ধ পরবর্তী শাসন ব্যবস্থা নিয়ে ফাটল স্পষ্ট হল ইসরায়েলের যুদ্ধকালীন মন্ত্রিসভায়। এই ইস্যুতে আগামী আট জুনের মধ্যে সুনির্দিষ্ট পরিকল্পনা না এলে পদত্যাগের হুঁশিয়ারি দিলেন উপদেষ্টা উপদেষ্টা মেনেই গান এবং বেসামরিক বিষয়গুলো দেখভালের জন্য একটি আন্তর্জাতিক জোট গঠনের কথাও তিনি বলেছেন৷ তবে এখনও নিজের অবস্থানে অনড় নেতানিয়াহু।

নয় তাণ্ডব শুরুর পর কয়েকবারই সামনে এসেছে ইসরাইলের যুদ্ধ কালীন মন্ত্রিসভার দ্বন্দ্ব। মূল কারণ যুদ্ধের পর গাধার ভবিষ্যৎ প্রশাসনিক পরিকল্পনা।
গেল কদিনে যা গড়িয়েছে বাকবিতন্ডায় এ 12 রীতিমতো পদত্যাগের হুঁশিয়ারি দিলেন যুদ্ধকালীন মন্ত্রিসভার সদস্য এবং নিরাপত্তা উপদেষ্টা বেগম জানান, আট জুনের মধ্যে গাজায় যুদ্ধ পরবর্তী শাসন ব্যবস্থা নিয়ে কোনও সিদ্ধান্তে না পৌঁছলে দেবেন ইস্তফা।

জিমি মুক্তি আর গাঁজা নিরস্ত্রীকরণ তো আছেই। পাশাপাশি উপত্যকার বেসামরিক বিষয়গুলো দেখভালের জন্য একটি আন্তর্জাতিক জোট গঠনের প্রস্তাব দেন তিনি।

আগামী আট জুনের মধ্যে সিদ্ধান্ত নিতে হবে। সরকারকে তৈরি করতে হবে ছয় দফা পরিকল্পনা আন্তর্জাতিক জোট তৈরি করে গাঁজার বেসামরিক বিষয়গুলো দেখভাল করা যেতে পারে৷ তাঁদের যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপ আরব বিশ্ব আর ফিলিস্তিনের প্রতিনিধিত্ব থাকতে পারে উঠেছে।

নেতানিয়াহুর তীব্র সমালোচনা করতেও পিছপা হননি গান খুব ছেড়ে বলেন দেশকে রসাতলে নিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী। পুরো জাতিকে ধোঁয়াশায় রাখছেন এমনটাও তাঁর অভিযোগ।

খুন নয়, বরং জাতীয় স্বার্থ নিয়ে ভাবতে হবে। কিন্তু নেতানিয়াহু পুরো দেশকে অতল গহ্বরে নিয়ে যাচ্ছে।

তাঁকে অবশ্য এবং দলাদলির মধ্যে থেকে একটি বেছে নিতে হবে দায়িত্ব৷ পাওনা চার বিজয় বা বিপর্যয় পার্থক্য করতে হবে বলে।
এই শোতে মন্তব্য করেছেন, কট্টর ডানপন্থি জাতীয় নিরাপত্তা বিষয়ক মন্ত্রী ইসলামের বেঙ্গলির স্পষ্ট করেছেন নিজের অবস্থান জানিয়েছেন বিনিয়োগ জনকে। মন্ত্রিসভা থেকে বের করে দেওয়ার আহ্বান ভাঙতে বলেছেন যুদ্ধকালীন মন্ত্রিসভাও জন্য চলতি সপ্তাহেই গাজায় যুদ্ধ পরবর্তী শাসন ব্যবস্থা নিয়ে নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে ক্ষোভ ঝাড়েন প্রতিরক্ষামন্ত্রী। পাশাপাশি এই 100 তে রয়েছে৷ আন্তর্জাতিক চাপও।

তার পরও নিজের অবস্থানে অনড় ইজরায়েলের প্রধানমন্ত্রী। তবে সব পক্ষের বক্তব্য একটাই। যুদ্ধের পর গাঁজার শাসনভার পাবেন না। হামাস বা ফাতাহ। News Media BD নিউস।

আমাদের হাতে জিম্মি আরও এক ইসরাইলের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। শনিবার এই তথ্য জানিয়েছে দেশটির সামরিক বিভাগ আই ডি এফ মুখপাত্র ড্যানিয়েল গাড়ি বলেছেন, ইসরায়েলের সেনা ও গোয়েন্দা ইউনিটের যৌথ অভিযানে উদ্ধার করা হয়। ওই ব্যক্তির মরদেহ তাঁকে রণবীর ইয়ামিন হিসেবে শনাক্ত করা হয়েছে। বয়স 53 বছর এবং ধারণা গত 7 অক্টোবর ইসরায়েল ভূখণ্ডে অভিযান পরিচালনার সময় তাকে হত্যা করেছে হামাস সদস্যরা। কিন্তু গাজায় নিয়ে যায় মরদেহ। একদিন আগে হামাসের একটি সুড়ঙ্গে অভিযান চালিয়ে তিন ইজরায়েলির।

মরদেহ উদ্ধারের খবর জানায়, আইটিএফ এখনও হামাসের হাতে জিম্মি একশ 28 জনের হয়। গাড়ির দাবি, তাঁদের উদ্ধারে সর্বোচ্চ চেষ্টা চলছে। ইজরায়েলের সরকার বিরোধী বিক্ষোভে বিক্ষোভ। সুস্থ থাকুন এবং News Media BD Post দেখতে থাকুন।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

আপলোডকারীর তথ্য

ইসরায়েলের মন্ত্রিসভায় পদত্যাগের হুমকি

গাজায় অভিযান নিয়ে বিভক্তি বাড়ছে | ইসরায়েলের মন্ত্রিসভায় |পদত্যাগের হুমকি নিরাপত্তা উপদেষ্টার |

আপডেট সময় : ০২:০২:৩৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৯ মে ২০২৪

আসসালামুয়ালাইকুম। নিউজমিডিয়াবিডি.কম সবাইকে স্বাগতম। গাজায় অভিযান নিয়ে বিভক্তি বাড়ছে ইসরায়েলের মন্ত্রিসভায় আট জনের মধ্যে সুনির্দিষ্ট পরিকল্পনা না এলে পদত্যাগের হুমকি নিরাপত্তা উপদেষ্টার।
শুক্রের পূর্বাঞ্চলে একের পর এক এলাকা দখলে নিচ্ছে ভাষা অস্ত্র সেনা সঙ্কটে কোণঠাসা হলেও অবস্থান ধরে রাখতে মরিয়া কি? জয়া।
টিভি বিতর্ক ঘিরে কথার লড়াই মার্কিন নির্বাচনের দুই প্রার্থী প্রেসিডেন্ট বাইডেনের বাদক পরীক্ষা করার দাবি ডোনাল্ড ট্রাম্পের।

নতুন ছিলেন নুসরাত বৃষ্টি সাথে আছে। ইসরায়েলি নৃশংসতার একটি রক্তক্ষয়ী রাত দেখল গাজাবাসী উত্তর ও দক্ষিণাঞ্চলের একাধিক শরণার্থী শিবিরে ভয়াবহ তাণ্ডব চালানো হয়। টার্গেট ছিল জনবহুল এলাকাগুলো শনিবারের হামলায় কমপক্ষে 64 জনের মৃত্যু হয়েছে। বিভিন্ন ভবনের ধ্বংসস্তূপের নিচে চাপা পড়ে আছে অনেকেই। তাই প্রাণহানির ধারণার তুলনায় বেশি এমন শঙ্কা ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষের জাবালিয়া শরণার্থী শিবিরে রাতভর বোমাবর্ষণ করেছে। ইজরায়েলি সেনা এবং বিমান হামলায় কমপক্ষে 28 জন নিহত হয়েছে, যার বেশিরভাগই নারী ও শিশু।

উত্তর গাজার আরও ভেতরে প্রবেশ করেছে পদাতিক সেনাদল আগ্রাসন চালিয়েছে। উপত্যকার অন্যান্য অংশ থেকে রাতে বিমান হামলায় 17 জনের প্রাণ গেছে রাফাত খান৷ উনিও টানা বোমা বর্ষণ করছে ইহুদি সেনারা।
ইসরায়েলের তীব্র হামলার জের অফার ছাড়তে বাধ্য হয়েছেন নয় লাখ ফিলিস্তিনি। শনিবার এই তথ্য জানিয়েছে, জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক এজেন্সির ইউএনআরডব্লিউএ। তবে তাঁরা কোথায় যাবে কোন নিশ্চয়তা নেই। এরই মধ্যে আলবেলাতে তৈরি হয়েছে স্থান সঙ্কট। অনেকেই সাত অক্টোবরের পর থেকে কয়েক দফায় বাস্তুচ্যূত হয়েছেন। নতুনভাবে আবারো তাদের খুঁজতে হচ্ছে নিরাপদ আশ্রয়৷ শুধু রফা নয়, হামলা জোরদার এর কারণে উত্তর গাজা ও খালি করতে শুরু করেছে ফিলিস্তিনের পর্যন্ত।

1,00,000 মানুষ অঞ্চল থেকে সরে গেছেন। তবে কোথায় আশ্রয় নেবেন তা কেউ জানেন না। নিরাপদ বলে ঘোষণার পর ওখানে নিজেদের বালা সহ পুরো গাজায় হামলা চালাচ্ছে ইসরায়েলি সেনারা।

গাজায় যুদ্ধ পরবর্তী শাসন ব্যবস্থা নিয়ে ফাটল স্পষ্ট হল ইসরায়েলের যুদ্ধকালীন মন্ত্রিসভায়। এই ইস্যুতে আগামী আট জুনের মধ্যে সুনির্দিষ্ট পরিকল্পনা না এলে পদত্যাগের হুঁশিয়ারি দিলেন উপদেষ্টা উপদেষ্টা মেনেই গান এবং বেসামরিক বিষয়গুলো দেখভালের জন্য একটি আন্তর্জাতিক জোট গঠনের কথাও তিনি বলেছেন৷ তবে এখনও নিজের অবস্থানে অনড় নেতানিয়াহু।

নয় তাণ্ডব শুরুর পর কয়েকবারই সামনে এসেছে ইসরাইলের যুদ্ধ কালীন মন্ত্রিসভার দ্বন্দ্ব। মূল কারণ যুদ্ধের পর গাধার ভবিষ্যৎ প্রশাসনিক পরিকল্পনা।
গেল কদিনে যা গড়িয়েছে বাকবিতন্ডায় এ 12 রীতিমতো পদত্যাগের হুঁশিয়ারি দিলেন যুদ্ধকালীন মন্ত্রিসভার সদস্য এবং নিরাপত্তা উপদেষ্টা বেগম জানান, আট জুনের মধ্যে গাজায় যুদ্ধ পরবর্তী শাসন ব্যবস্থা নিয়ে কোনও সিদ্ধান্তে না পৌঁছলে দেবেন ইস্তফা।

জিমি মুক্তি আর গাঁজা নিরস্ত্রীকরণ তো আছেই। পাশাপাশি উপত্যকার বেসামরিক বিষয়গুলো দেখভালের জন্য একটি আন্তর্জাতিক জোট গঠনের প্রস্তাব দেন তিনি।

আগামী আট জুনের মধ্যে সিদ্ধান্ত নিতে হবে। সরকারকে তৈরি করতে হবে ছয় দফা পরিকল্পনা আন্তর্জাতিক জোট তৈরি করে গাঁজার বেসামরিক বিষয়গুলো দেখভাল করা যেতে পারে৷ তাঁদের যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপ আরব বিশ্ব আর ফিলিস্তিনের প্রতিনিধিত্ব থাকতে পারে উঠেছে।

নেতানিয়াহুর তীব্র সমালোচনা করতেও পিছপা হননি গান খুব ছেড়ে বলেন দেশকে রসাতলে নিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী। পুরো জাতিকে ধোঁয়াশায় রাখছেন এমনটাও তাঁর অভিযোগ।

খুন নয়, বরং জাতীয় স্বার্থ নিয়ে ভাবতে হবে। কিন্তু নেতানিয়াহু পুরো দেশকে অতল গহ্বরে নিয়ে যাচ্ছে।

তাঁকে অবশ্য এবং দলাদলির মধ্যে থেকে একটি বেছে নিতে হবে দায়িত্ব৷ পাওনা চার বিজয় বা বিপর্যয় পার্থক্য করতে হবে বলে।
এই শোতে মন্তব্য করেছেন, কট্টর ডানপন্থি জাতীয় নিরাপত্তা বিষয়ক মন্ত্রী ইসলামের বেঙ্গলির স্পষ্ট করেছেন নিজের অবস্থান জানিয়েছেন বিনিয়োগ জনকে। মন্ত্রিসভা থেকে বের করে দেওয়ার আহ্বান ভাঙতে বলেছেন যুদ্ধকালীন মন্ত্রিসভাও জন্য চলতি সপ্তাহেই গাজায় যুদ্ধ পরবর্তী শাসন ব্যবস্থা নিয়ে নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে ক্ষোভ ঝাড়েন প্রতিরক্ষামন্ত্রী। পাশাপাশি এই 100 তে রয়েছে৷ আন্তর্জাতিক চাপও।

তার পরও নিজের অবস্থানে অনড় ইজরায়েলের প্রধানমন্ত্রী। তবে সব পক্ষের বক্তব্য একটাই। যুদ্ধের পর গাঁজার শাসনভার পাবেন না। হামাস বা ফাতাহ। News Media BD নিউস।

আমাদের হাতে জিম্মি আরও এক ইসরাইলের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। শনিবার এই তথ্য জানিয়েছে দেশটির সামরিক বিভাগ আই ডি এফ মুখপাত্র ড্যানিয়েল গাড়ি বলেছেন, ইসরায়েলের সেনা ও গোয়েন্দা ইউনিটের যৌথ অভিযানে উদ্ধার করা হয়। ওই ব্যক্তির মরদেহ তাঁকে রণবীর ইয়ামিন হিসেবে শনাক্ত করা হয়েছে। বয়স 53 বছর এবং ধারণা গত 7 অক্টোবর ইসরায়েল ভূখণ্ডে অভিযান পরিচালনার সময় তাকে হত্যা করেছে হামাস সদস্যরা। কিন্তু গাজায় নিয়ে যায় মরদেহ। একদিন আগে হামাসের একটি সুড়ঙ্গে অভিযান চালিয়ে তিন ইজরায়েলির।

মরদেহ উদ্ধারের খবর জানায়, আইটিএফ এখনও হামাসের হাতে জিম্মি একশ 28 জনের হয়। গাড়ির দাবি, তাঁদের উদ্ধারে সর্বোচ্চ চেষ্টা চলছে। ইজরায়েলের সরকার বিরোধী বিক্ষোভে বিক্ষোভ। সুস্থ থাকুন এবং News Media BD Post দেখতে থাকুন।