ঢাকা ০৮:৪৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

অধিনায়ক আফ্রিদিকে আরও সময় দেওয়া যেতে পারে মনে করেন শাদাব

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৬:০৬:৪৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৬ জুন ২০২৪ ৩৩ বার পড়া হয়েছে

অধিনায়ক আফ্রিদিকে আরও সময় দেওয়া যেতে পারে মনে করেন শাদাব

অধিনায়কত্বের ক্ষেত্রে শাহিন শাহ আফ্রিদিকে আরেকটু সময় দেওয়া যেতে পারত বলে মন্তব্য করেছেন শাদাব খান। এ ক্ষেত্রে একটা পদ্ধতি বা প্রক্রিয়া অনুসরণ করা যেত বলেও মনে করেন এ লেগ স্পিনার।

সর্বশেষ ওয়ানডে বিশ্বকাপের পর তিন সংস্করণের নেতৃত্ব থেকে বাবর আজম সরে দাঁড়ানোর পর টি-টোয়েন্টি দলের দায়িত্ব দেওয়া হয় আফ্রিদিকে। তবে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে মাত্র এক সিরিজ পরই সরিয়ে দেওয়া হয় এ বাঁহাতি পেসারকে। যে সিরিজটি ৪-১ ব্যবধানে হারে পাকিস্তান। আফ্রিদিকে সরিয়ে আবার দায়িত্ব দেওয়া হয় বাবরকে। টেস্ট দলের দায়িত্বে অবশ্য শান মাসুদ আছেন এখনো, ওয়ানডেতে বাবরের জায়গায় কাউকে দায়িত্ব দেওয়া হয়নি। বিশ্বকাপের পর ওই সংস্করণে খেলেওনি পাকিস্তান।

আফ্রিদিকে নেতৃত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়া নিয়ে সমালোচনা হয়েছে আগেও। এবার শাদাব মুখ খুললেন তা নিয়ে। উইজডেনকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে শাদাব বলেন, ‘শাহিনের দিক দিয়ে দেখলে এত দ্রুত বিষয়গুলো বদলানো উচিত হয়নি। একটা পদ্ধতি বা প্রক্রিয়া থাকা উচিত ছিল, যাতে ধারাবাহিকতা নিশ্চিত হয়, যাতে ধারাবাহিক ফল আসে।

আরও পড়ুন

চোটের কারণে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ওই সিরিজে ছিলেন না শাদাব। আগেও বাবরের অধিনায়কত্বে খেলেছেন, ফিরে এসেও তাই। এ লেগ স্পিনারের ওপর তাই অধিনায়কত্ব বদলের প্রভাব পড়েনি, ‘দুর্ভাগ্যজনকভাবে আমি শাহিনের অধীনে খেলিনি চোটের কারণে। ফলে ফিরে এসে আমি বাবরের অধীনেই খেলছিলাম। সবকিছু তাই আমার জন্য একই ছিল।

আরও পড়ুন

তবে আফ্রিদিকে আরও সময় দেওয়া যেত বলে মনে করেন তিনি, ‘শাহিনের দিক থেকে দেখলে এ ভূমিকায় তাকে হয়তো আরেকটু সময় দেওয়া যেত। তবে বাবর ফিরে আসায় আমরা অভিজ্ঞ একজন অধিনায়ক পেয়েছি। ফলে আমার জন্য কোনো কিছু কঠিন হয়ে উঠবে—এমন কোনো পরিবর্তন ঘটেনি।’

বিশ্বকাপের আগে দলের সহ-অধিনায়কত্বের প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল আফ্রিদিকে, মাঝে এমন সংবাদও এসেছিল। যদিও সেটি অস্বীকার করে পিসিবি জানায়, কাউকেই এমন প্রস্তাব দেওয়া হয়নি।

আরো জানোন

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

আপলোডকারীর তথ্য

অধিনায়ক আফ্রিদিকে আরও সময় দেওয়া যেতে পারে মনে করেন শাদাব

আপডেট সময় : ০৬:০৬:৪৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৬ জুন ২০২৪

অধিনায়কত্বের ক্ষেত্রে শাহিন শাহ আফ্রিদিকে আরেকটু সময় দেওয়া যেতে পারত বলে মন্তব্য করেছেন শাদাব খান। এ ক্ষেত্রে একটা পদ্ধতি বা প্রক্রিয়া অনুসরণ করা যেত বলেও মনে করেন এ লেগ স্পিনার।

সর্বশেষ ওয়ানডে বিশ্বকাপের পর তিন সংস্করণের নেতৃত্ব থেকে বাবর আজম সরে দাঁড়ানোর পর টি-টোয়েন্টি দলের দায়িত্ব দেওয়া হয় আফ্রিদিকে। তবে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে মাত্র এক সিরিজ পরই সরিয়ে দেওয়া হয় এ বাঁহাতি পেসারকে। যে সিরিজটি ৪-১ ব্যবধানে হারে পাকিস্তান। আফ্রিদিকে সরিয়ে আবার দায়িত্ব দেওয়া হয় বাবরকে। টেস্ট দলের দায়িত্বে অবশ্য শান মাসুদ আছেন এখনো, ওয়ানডেতে বাবরের জায়গায় কাউকে দায়িত্ব দেওয়া হয়নি। বিশ্বকাপের পর ওই সংস্করণে খেলেওনি পাকিস্তান।

আফ্রিদিকে নেতৃত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়া নিয়ে সমালোচনা হয়েছে আগেও। এবার শাদাব মুখ খুললেন তা নিয়ে। উইজডেনকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে শাদাব বলেন, ‘শাহিনের দিক দিয়ে দেখলে এত দ্রুত বিষয়গুলো বদলানো উচিত হয়নি। একটা পদ্ধতি বা প্রক্রিয়া থাকা উচিত ছিল, যাতে ধারাবাহিকতা নিশ্চিত হয়, যাতে ধারাবাহিক ফল আসে।

আরও পড়ুন

চোটের কারণে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ওই সিরিজে ছিলেন না শাদাব। আগেও বাবরের অধিনায়কত্বে খেলেছেন, ফিরে এসেও তাই। এ লেগ স্পিনারের ওপর তাই অধিনায়কত্ব বদলের প্রভাব পড়েনি, ‘দুর্ভাগ্যজনকভাবে আমি শাহিনের অধীনে খেলিনি চোটের কারণে। ফলে ফিরে এসে আমি বাবরের অধীনেই খেলছিলাম। সবকিছু তাই আমার জন্য একই ছিল।

আরও পড়ুন

তবে আফ্রিদিকে আরও সময় দেওয়া যেত বলে মনে করেন তিনি, ‘শাহিনের দিক থেকে দেখলে এ ভূমিকায় তাকে হয়তো আরেকটু সময় দেওয়া যেত। তবে বাবর ফিরে আসায় আমরা অভিজ্ঞ একজন অধিনায়ক পেয়েছি। ফলে আমার জন্য কোনো কিছু কঠিন হয়ে উঠবে—এমন কোনো পরিবর্তন ঘটেনি।’

বিশ্বকাপের আগে দলের সহ-অধিনায়কত্বের প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল আফ্রিদিকে, মাঝে এমন সংবাদও এসেছিল। যদিও সেটি অস্বীকার করে পিসিবি জানায়, কাউকেই এমন প্রস্তাব দেওয়া হয়নি।

আরো জানোন